Breaking News
Home / বাংলা টিপস / খুব সহজেই বানিয়ে ফেলুন ভীষণ মজার ‘দই কাতলা’

খুব সহজেই বানিয়ে ফেলুন ভীষণ মজার ‘দই কাতলা’

কথাতেই আছে, ‘মাছে, ভাতে বাঙালি’। দুপুরে মাছ ছাড়া ভাত খাওয়া বাঙালি ভাবতেই পারে না। বাঙালির প্রিয় খাদ্য তালিকার মধ্যে মাছ তার জায়গাটি একেবারে পাকা করে নিয়েছে। এছাড়াও সুস্বাস্থ্যের জন্য প্রতিদিন খাদ্যতালিকায় মাছ রাখা প্রয়োজন।

নিয়মিত মাছ খেলে দেহের মেটাবলিজম বৃদ্ধি পায়। দৃষ্টিশক্তি উন্নতি করে। মাছ রান্না করার সময় কখনোই বেশি ভাজা বা বেশি সিদ্ধ করা উচিত নয়। হালকা ভেজে তুলে নিয়ে মাছ রান্না করুন তাতেই মাছের পুষ্টিগুণ বজায় থাকবে। দেখে নিন দই কাতলার রেসিপি।

উপকরণ: কাতলা মাছ, পেঁয়াজ বাটা, আদা বাটা, রসুন বাটা, গুঁড়া মরিচ, টক দই, সরিষার তেল, চিনি, লবন, এলাচ, দারুচিনি লবঙ্গ, হলুদ গুঁড়া।

প্রণালী: একটি পাত্রের মধ্যে টক দই পেঁয়াজ বাটা, আদা বাটা, রসুন বাটা, মরিচ গুঁড়া, হলুদ গুঁড়া দিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে রাখতে হবে। কড়াইয়ে সরিষার তেল গরম করতে হবে। মাছ গুলো সামান্য ভেজে তুলে রাখতে হবে। তেল গরম হলে লবঙ্গ, দারুচিনি, এলাচ দিতে হবে।

ভালো করে ভাজা হয়ে যাওয়ার পরে টক দই এর মিশ্রণটি দিয়ে দিতে হবে। ভাল করে কষাতে হবে। কষানো হয়ে গেলে মাছের টুকরোগুলো দিয়ে দিতে হবে। অল্প একটু মিষ্টি এবং স্বাদমতো লবন দিয়ে প্রয়োজন মতো পানি দিয়ে ঢাকা দিতে হবে। মাছ সিদ্ধ হয়ে গেলে গরম গরম পরিবেশন করুন ‘দই কাতলা’। ভাত, পোলাও কিংবা ফ্রাইড রাইসের সঙ্গে জমে যাবে ‘দই কাতলা’।

Check Also

শখের কাপে চা-কফির দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়!

শখের কাপ থেকে চা-কফির জেদি দাগ তুলতে আপনি ঘরোয়া উপায়ের সাহায্য নিতে পারেন। আসুন জেনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.